Connect with us

Hi, what are you looking for?

Newsbd71Newsbd71

বাংলাদেশ

করোনা চিকিৎসায় প্রতারণা : রিজেন্ট হাসপাতালে র‌্যাবের হানা

করোনা চিকিৎসায় প্রতারণা : রিজেন্ট হাসপাতালে র‌্যাবের হানা
করোনা চিকিৎসায় প্রতারণা : রিজেন্ট হাসপাতালে র‌্যাবের হানা

ঢাকা :  সাইফুল ইসলাম (ছদ্মনাম) করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে পরীক্ষা করাতে চান। তার পরিবারেরও কয়েকজনের একই ধরনের উপসর্গ ছিল। রিজেন্ট হাসপাতালের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তিনি। গত ২৭ জুন হাসপাতাল থেকে তারিক শিবলি নামে একজন ব্যক্তি সাইফুলদের বাসায় যান নমুনা সংগ্রহ করতে। ছয় জনের নমুনা নিয়ে ফি হিসেবে ২৭ হাজার টাকা বুঝে নেন তিনি। এসময় কোনো কাগজ না দিলেও নিজের মোবাইল নম্বর দিয়ে আসেন তারিক শিবলি।

২৯ জুনই নমুনা পরীক্ষার ফল পান সাইফুল ইসলাম। ইমেইল ঠিকানা থেকে যায় রিপোর্ট, সেটি ছিল রাজধানীর জনস্বাস্থ্য ইনস্টিউটের (আইপিএইচ) প্যাডে। মেইলে নমুনা সংগ্রহের সাইট হিসেবে রিজেন্ট হাসপাতাল ও রেফার্ড বাই রিজেন্ট হাসপাতাল লেখা ছিল। নমুনা পরীক্ষায় ছয় জনের মধ্যে দু’জন পজিটিভ ও চার জন নেগেটিভ আসেন। রিপোর্ট নিয়ে সন্দেহ জানালে ৩ জুলাই ফের তাদের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল দেওয়া হয়। এবার তাদের নমুনা পরীক্ষার ফল আসে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব প্রিভেন্টিভ অ্যান্ড সোস্যাল মেডিসিনের (নিপসম) ওয়েবসাইটে। তবে এবারের নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে চার জন পজিটিভ ও দু’জন নেগেটিভ আসেন। এই চার জনই আবার আগের রিপোর্টে নেগেটিভ ছিলেন! শুধু তাই নয়, নিপসমে এই ছয় জনের নমুনা সংগ্রহের তারিখ ২ জুলাই দেখানো হলেও ওই দিন সাইফুল বা তার পরিবারের কারও কাছ থেকেই কোনো নমুনা সংগ্রহ করা হয়নি।

প্রায় একই অভিযোগ করেন রাজধানীর আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের আরেকজন কর্মকর্তা। তার বাসায় গিয়ে আট জনের নমুনা পরীক্ষা বাবদ ৪০ হাজার টাকা ফি নেন রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো.সাহেদের জনসংযোগ কর্মকর্তা তারিক শিবলি। আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের ওই কর্মকর্তাকেও আইপিএইচের প্যাডেই নমুনা পরীক্ষার ফলাফল জানানো হয়।
এদিকে, আরো একজন ভুক্তভোগীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তারা রিজেন্ট হাসপাতালে গিয়ে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিয়ে এলেও এখনো কোনো রিপোর্ট পাননি। তাদের কাছ থেকে পরীক্ষার ফি নেওয়া হলেও কোনো রশিদ দেওয়া হয়নি।

এরকম ভুক্তভোগী আরো অনেকেই আছেন, যারা রিজেন্ট হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা নিয়ে নানা ধরনের প্রতারণার শিকার হয়েছেন। ভুক্তভোগীরা বলছেন, রিজেন্ট হাসপাতাল আসলে জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের নাম করে করোনা পরীক্ষার ভুয়া ফল দিত। অনুসন্ধানেও বেরিয়ে এসেছে, রিজেন্ট হাসপাতাল করোনা শনাক্তের জন্য নমুনা সংগ্রহ করলেও সেগুলো পরীক্ষা না করিয়েই রিপোট ধরিয়ে দিত।

করোনা নমুনা পরীক্ষা ছাড়াও রিজেন্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম-প্রতারণার অভিযোগ উঠে এসেছে অনুসন্ধানে। জানা গেছে, হাসপাতাল পরিচালনার লাইসেন্সের মেয়াদ অনেক আগেই শেষ হয়েছে তাদের। তারপরও স্বাস্থ্য অধিদফতরের সঙ্গে সমঝোতার ভিত্তিতে করোনা চিকিৎসা দিতে শুরু করে তারা। তবে সরকারি ব্যবস্থাপনায় চিকিৎসা চললেও রোগীদের কাছ থেকে বিপুল অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। অন্যদিকে, করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে কেবল হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের নমুনা নিয়ে পরীক্ষা করানোর কথা থাকলেও তারা অনুমতি ছাড়াই বাসায় নিয়ে নমুনা সংগ্রহ করত।

এসব অভিযোগে গতকাল সোমবার (৬ জুলাই) রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান শুরু করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব)। সংস্থাটির সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে এই অভিযান চলছে। সারোয়ার আলম জানিয়েছেন, অভিযান শেষ হলে বিস্তারিত জানানো হবে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, সাইফুলকে জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট থেকে নমুনা পরীক্ষার ফল জানানো হয় যে সনদ ব্যবহার করে, তার একটিতে প্রতিষ্ঠানটি ল্যাব আইডি ব্যবহার করে ওচঐ ০৫৩৭৭০ নম্বরটি। অর্থাৎ জনস্বাস্থ্য ইনস্টিউটে ৫৩ হাজার ৭৭০ নম্বর নমুনা ছিল সেটি। অথচ জুনের ওই সময়ে পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটিতে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে মাত্র ৪৫ হাজার।

শুধু তাই নয়, জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে যোগাযোগ করে জানা যায়, তারা এমন কোনো সনদ দেননি কাউকে। ২৩ মে তারিখের পর থেকে রিজেন্ট হাসপাতালের কোনো নমুনাও পরীক্ষা করেননি তারা।

আইপিএইচের ল্যাব টেকনোলজিস্ট ও ভাইরোলজিস্টের সই করা সনত বিষয়ে জানতে চাইলে প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা ডা.মাহবুবা জামিল বলেন, আমরা এ ধরনের কোনো সনদ দেইনি। তারা আমাদের এখানে নমুনা পরীক্ষাই করায়নি। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমরা যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে রেখেছি।

জানতে চাইলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা.নাসিমা সুলতানা বলেন, রিজেন্ট হাসপাতালের দুইটি শাখায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীদের ২৫টি করে মোট ৫০টি নমুনা জমা দেওয়ার কথা ছিল নিপসমে। কিন্তু বাসায় গিয়ে তাদের নমুনা সংগ্রহের কোনো অনুমতি দেওয়া হয়নি। আর হাসপাতালে যদি নমুনা সংগ্রহ করে, তবে সেক্ষেত্রেও তারা বিল নিতে পারবে না। কারণ তাদের নমুনা পরীক্ষা সরকারিভাবে বিনামূল্যে করানো হচ্ছিল।

নিউজবিডি৭১/এম কে / ০৬ জুলাই ২০২০

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ফেসবুকে ২৪ লক্ষের পরিবার

বাংলাদেশ

ইসলাম

নূর হোসাইন: জামিয়াতুন নূর আল কাসেমিয়ার আরবী সাহিত্য বিভাগের উদ্যোগে আরবি দেওয়ালিকা ‘আন-নূর’ প্রকাশিত হয়েছে। শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) বিকাল ৫টায় আনুষ্ঠানিকভাবে দেয়ালিকার মোড়ক উন্মোচন...

কপিরাইট Ⓒ ২০১২-২০২১ নিউজবিডি৭১.নেট । সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। বাড়ী- ৪৯ (১ম তলা), রোড- ১২, সেক্টর-১১, উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০, বাংলাদেশ। প্রকাশক- মোহাম্মদ মানিক খান