Connect with us

Hi, what are you looking for?

Newsbd71Newsbd71

ফিচার-সাহিত্য

তিরিশ বছর পর জানা গেল তারা দু’বোন পুরুষ!

তিরিশ বছর পর জানা গেল তারা দু’বোন পুরুষ!
তিরিশ বছর পর জানা গেল তারা দু’বোন পুরুষ!

বিচিত্র জগৎ ডেস্ক
ঢাকা : এত দিন নিজেকে নারী বলেই জানতেন তিনি। তিরিশ বছর বয়সে পৌঁছে ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পরে জানলেন, আসলে তিনি পুরুষ! দেহে ক্যান্সার বাসা না বাঁধলে সেই সত্য হয়তো জানা সম্ভব ছিল না। তার চিকিৎসকরাও এমন ঘটনাকে বিরল এবং চিকিৎসাশাস্ত্রের দিক দিয়ে ল’ক্ষ্যণীয় বলে মনে করছেন। খবর আনন্দবাজারের।

শুধু ওই রোগী নন, সন্দে’হ হওয়ায় তার ছোট বোনেরও জি’ন পরীক্ষা করেন চিকিৎসকেরা। দেখা গিয়েছে, আসলে তিনিও পুরুষ।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, গত এপ্রিল মাস নাগাদ নিউ গড়িয়ার নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু ক্যান্সার হাসপাতালে বীরভূমের এক রোগী আসেন। বিবাহিতা এবং যথেষ্ট সুদর্শনা। তার তলপেটে অস’হ্য য’ন্ত্র’ণা হচ্ছিল বেশ কিছু দিন ধ’রে। হাসপাতালের সার্জিক্যাল অনকোলজিস্ট সৌমেন দাস এবং ক্লি’নিক্যা’ল অনকোলজিস্ট অনুপম দত্ত তাকে পরীক্ষা করেন।

তার দৈহিক বৈশিষ্ট্য পুরোপুরি মেয়েদের মতোই। গলার স্বর থেকে শুরু করে স্ত’ন সবই মেয়েদের মতো। যো’নির গঠনও বহির’ঙ্গে নারীসুল’ভ। বিয়ে হয়েছে ৯ বছর আগে। তবে জন্ম থেকেই তার জ’রা’য়ু ও ডি’ম্বাশ’য় ছিল না। পি’রিয়’ড হয়নি। সিটি স্ক্যানে তার তলপেটে ১৫-১৫ সেন্টিমিটারের একটি টিউমার পাওয়া যায়।

সৌমেন দাস বলেন, পরীক্ষা করে দেখা যায়, তার যোনি রয়েছে ঠিকই, কিন্তু সেটি ব্লাইন্ড এন্ডেড’। অর্থাৎ শুরু হয়েই শেষ হয়ে গিয়েছে। আমাদের তখন সন্দে’হ হয়। রোগীর কেরিওটাইপিং’ অর্থাৎ ক্রোমোজোম পরীক্ষা করা হয়। তাতে দেখা যায়, তার শরীরের ক’ম্বিনেশ’ন হল ‘XY’ ক্রো’মোজোম, যা পুরুষদের থাকে। নারীদের শরীরে থাকে XX ক্রোমোজোম।

চিকিৎসকরা আরো জানান, ওই রোগীর তলপেটের টিউমারটি পরীক্ষা করে দেখা যায়, সেটি আসলে অণ্ডকোষ। যা শরীরের বাইরের বদলে তার শরীরের ভেতরে রয়েছে। বায়োপসি করে টিউমারে ক্যান্সার মে’লে।

অনুপম দত্ত বলেন, পুরুষদের যে ক্যান্সার হয়, এটি সেই ধরনের টে’স্টিকি’উলার ক্যান্সার। একে চিকিৎসার পরিভাষায় সে’মিনো’মা বলা হয়। ওই রোগীর এখন ২১ দিন অন্তর কেমোথেরাপি চ’লছে। অবস্থা আশ’ঙ্কাজ’নক। তা হলে প্রশ্ন ওঠে, বহিরঙ্গে তিনি কী করে মেয়েদের মতো?

সৌমেন দাস জানান, ওই রোগীর ‘টে’স্টিকি’উলার ফে’মিনাইজে’শন সি’নড্রো’ম’ রয়েছে। তার অ’ণ্ডকো’ষ যেহেতু শরীরের ভেতরে ছিল এবং সুগঠিত ছিল না, তাই পুরুষ হ’রমো’ন ‘টে’স্টোস্টে’রন’ ঠিকভাবে ক্ষ’রণ হয়নি। বরং তার দেহে নারীদের হ’রমো’ন তুলনামূলক বেশি ছিল। তাই তার দেহ একেবারে নারীর মতো।

চিকিৎসকরা জানতে পারেন, ওই রোগীর একমাত্র বোনেরও জন্ম থেকে জরায়ু ও ডিম্বাশয় নেই। বোনেরও কেরিওটাইপিং করেন। দেখা যায়, তার শরীরেও ‘XY’ জি’নের কম্বিনে’শন। তারও দেহের ভিতরে অণ্ডকোষ রয়েছে। চিকিৎসকদের কথায়, অণ্ডকোষের কথা আগে জানা গেলে ওটা অস্ত্রোপচার করে বাদ দেওয়া যেত। তা হলে ক্যান্সার পর্যন্ত গ’ড়াত না। তাই এখন ওই রোগীর বোনের অণ্ডকোষ অস্ত্রোপচারের প্রস্তুতি চলছে।

জানা গেছে, ওই রোগীর দুই খালাম্মার একই সমস্যা ছিল। এমনিতে নারী বলে মনে করা হলেও তাঁদের জরায়ু ও ডিম্বাশয় ছিল না। কিন্তু পরীক্ষা-নিরীক্ষা তেমন হয়নি বলে জি’নগতভাবে তারা কী ছিলেন, জানা যায়নি।

ওই রোগীর বোন জানান, কৈশোরে যখন আমাদের পিরিয়ড হলো না, তখন ডাক্তার দেখানো হয়েছিল। ডাক্তার বলেছিলেন, আমাদের ও’ভারি আর ইউটেরাস নেই, ফলে কোনো দিন সন্তান হবে না। সেটা জানিয়েই বোনের বিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু কখনো কেউ বলেননি যে, আমরা আসলে মহিলাই নই, বা আমাদের শরীরের ভিতরে অণ্ডকোষ রয়েছে।

নিউজবিডি৭১/ এম কে / ০২ জুলাই ২০২০

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ফেসবুকে ২৪ লক্ষের পরিবার

সর্বাধিক পঠিত

বাংলাদেশ

কালচার

সিলেটে বন্যা দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ সহায়তা প্রদান করেছে স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন ডে লাইফ সিল্ক ফাউন্ডেশন। সম্প্রতি নিজেদের স্বেচ্ছাসেবীদের নিয়ে সংগঠনটির প্রতিনিধিরা হাজির হয় সিলেটের...

কপিরাইট Ⓒ ২০১২-২০২১ নিউজবিডি৭১.নেট । সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। বাড়ী- ৪৯ (১ম তলা), রোড- ১২, সেক্টর-১১, উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০, বাংলাদেশ। প্রকাশক- মোহাম্মদ মানিক খান