Connect with us

Hi, what are you looking for?

Newsbd71Newsbd71

বাংলাদেশ

বন্ধের ঝুঁকিতে আকাশপথ

বন্ধের ঝুঁকিতে আকাশপথ
বন্ধের ঝুঁকিতে আকাশপথ

নিউজবিডি৭১ ডেস্ক
ঢাকা : করোনার কারণে দুই মাস বন্ধ থাকার পর গত ১৬ জুন বাংলাদেশ থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু হয়। শর্ত হিসেবে সবার করোনামুক্তির সার্টিফিকেট আবশ্যিক করা হয়। কিন্তু করোনা নেগেটিভের সনদ নিয়ে বেশকিছু দেশে যাওয়া বাংলাদেশিদের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। বাংলাদেশের সঙ্গে বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, কীভাবে করোনা নেগেটিভ সনদ নিয়েও সে দেশে গিয়ে পজিটিভ হচ্ছেন সেটি খতিয়ে দেখা উচিত। নইলে অন্য দেশের কাছে বাংলাদেশ সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা জন্মাবে এবং দীর্ঘ মেয়াদে দেশগুলোর সঙ্গে বিমান চলাচল বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

ইতালির সঙ্গে বিমান চলাচল শুরু হওয়ার পর গত দুই সপ্তাহে হাজারখানেক বাংলাদেশি বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে ইতালি ফিরে গেছে। কিন্তু বুধবার কাতার এয়ারওয়েজে ইতালি যাওয়া ১৬৮ বাংলাদেশি পাসপোর্টধারীকে দেশটিতে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। বাংলাদেশ ফেরত যাত্রীদের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করে ইতালি। এর পর এক সপ্তাহের জন্য বাংলাদেশের সব ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

বাংলাদেশের সঙ্গে ফ্লাইট বাতিল করলেও কাতার থেকে যাওয়া ফ্লাইট চালু রেখেছে ইতালি। তাই দোহা থেকে যাওয়া ওই ফ্লাইটটির বাংলাদেশি যাত্রীদের ইতালি প্রবেশে কোনো বাধা থাকার কথা ছিল না। কিন্তু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে উদ্ধৃত করে ইতালির জাতীয় দৈনিক ইল মেসসাজ্জেরোর জানায়, কোনো বাংলাদেশি ইতালিতে প্রবেশ করতে পারবেন না।

এদিকে কাতার এয়ারওয়েজের বাংলাদেশ অফিস গতকাল এক বিজ্ঞপিতে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত কোনো বাংলাদেশি কাতার এয়ারওয়েজে ইতালি যেতে পারবে না বলে জানিয়েছে।

ইতালি প্রতিনিধি ইসমাঈল হোসেন স্বপন জানান, ইতালির মিলানে নামা ৪০ যাত্রীর ৩৯ জনকে দোহাগামী ফিরতি ফ্লাইটে ফেরত পাঠানো হয়। একজন নারীযাত্রী অপেক্ষমাণ অবস্থায় বিমানবন্দরে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে নিকটস্থ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সুস্থ হওয়ার পর তাকেও ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

কাতার এয়ারওয়েজের অপর ফ্লাইটে ইতালির রোমে যাওয়া ১২৫ বাংলাদেশিকে বিমান থেকে নামতে দেওয়া হয়নি। তাদেরও ফেরত পাঠানো হয়।

সম্প্রতি কোভিড-১৯ নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিয়েও চার বাংলাদেশির শরীরে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের চার্টার্ড ফ্লাইটে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে জাপান। সম্প্রতি বিমানের চার্টার্ড ফ্লাইটে জাপান যান অনেক বাংলাদেশি। কোভিড-১৯ নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিয়ে দেশটিতে প্রবেশ করেন তারা। কিন্তু জাপান যাওয়ার পর চার বাংলাদেশির কোভিড-১৯ পজিটিভ হন। এ চার বাংলাদেশির হেলথ সার্টিফিকেটে বলা ছিল, তারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত নন এবং তাদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা নেই।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন বলেন, বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। সম্প্রতি জাপান, চীনে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিয়ে যাওয়া বাংলাদেশিরা সে দেশে করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ ধরা পড়েছে। গণমাধ্যমে খবর এসেছে, আমাদের দেশে একদল অসাধু ব্যক্তি টাকার বিনিময়ে করোনা নেগেটিভ-পজিটিভ সার্টিফিকেট বিক্রি করছে। এভাবে চললে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে। আমরা বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য।

এ বিষয়ে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান বলেন, কোনো যাত্রীর করোনা সার্টিফিকেট সত্য না মিথ্যা তা পরীক্ষা করা সিভিল এভিয়েশনের কাজ না। এটি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কাজ। দেশের একটি অসাধু চক্রের কারণে বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে। এভাবে চললে বাংলাদেশের এভিয়েশন খাতও ক্ষতিগ্রস্ত হবে। আমরা যথাযথ কর্তৃপক্ষকে এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে বলব।

নিউজবিডি৭১/এম কে / ১০ জুলাই ২০২০

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ফেসবুকে ২৪ লক্ষের পরিবার

সর্বাধিক পঠিত

বাংলাদেশ

কালচার

সিলেটে বন্যা দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ সহায়তা প্রদান করেছে স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন ডে লাইফ সিল্ক ফাউন্ডেশন। সম্প্রতি নিজেদের স্বেচ্ছাসেবীদের নিয়ে সংগঠনটির প্রতিনিধিরা হাজির হয় সিলেটের...

কপিরাইট Ⓒ ২০১২-২০২১ নিউজবিডি৭১.নেট । সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। বাড়ী- ৪৯ (১ম তলা), রোড- ১২, সেক্টর-১১, উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০, বাংলাদেশ। প্রকাশক- মোহাম্মদ মানিক খান