ব্রাজিলে গত কয়েক সপ্তাহে সংক্রমণ এবং মৃত্যু আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছেই। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৪ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে। যা দেশটিতে আগের সব রেকর্ড ভেঙেছে।

ইতোমধ্যে লাতিন আমেরিকার দেশটিতে তিন লাখ ৩৭ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন। পরিসংখ্যানে যুক্তরাষ্ট্রের পরেই তাদের অবস্থান।

কিন্তু ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো ক্রমাগতই লকডাউনের বিরোধিতা করে যাচ্ছেন। তার যুক্তি— অর্থনৈতিকভাবে দেশ আক্রান্ত হলে এর প্রভাব ভাইরাসের চেয়ে বেশি খারাপ হবে। এমনকি স্থানীয় কিছু কর্তৃপক্ষের জারি করা নিষেধাজ্ঞা তুলে দেওয়ার চেষ্টা করছেন তিনি।

মঙ্গলবার বাসভবনের বাইরে সমর্থকদের উদ্দেশে বক্তৃতাকালে বলসোনারো কোয়ারেন্টিনের সমালোচনা করেন। তার মতে, নিভৃতবাসের সঙ্গে স্থুলতা ও বিষণ্নতার সংযোগ আছে, যা বেকারত্বের দিকে নিয়ে যায়।

ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুযায়ী, দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ১৯৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু বোলসোনারো এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি। দেশটিতে শুধ মার্চেই ৬৬ হাজার ৫৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যান বলছে, ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৩১ লাখ ৬ হাজার ৫৮। এর মধ্যে মারা গেছে ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৩৬৪ জন। ইতোমধ্যেই দেশটিতে সুস্থ হয়ে উঠেছে ১ কোটি ১৫ লাখ ৫৮ হাজার ৭৮৪ জন।

 

 

নিউজবিডি৭১ /ই হোসে