আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের পর প্রথম প্রকাশ্যে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাল উত্তর কোরিয়া। দেশটির পশ্চিম উপকূল থেকে পরীক্ষা চালানো হয় বলে জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা।

এ দিকে মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) বাইডেন প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়, এখনো আলোচনার জন্য উন্মুক্ত রয়েছে।

বাইডেন প্রশাসন উত্তর কোরিয়ার সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টা অব্যাহত রাখার পরেও এই পরীক্ষা চালাল পিয়ংইয়ং।

দক্ষিণ কোরিয়া জানিয়েছে, রবিবার (২১ মার্চ) ভোররাতে উত্তর কোরিয়ার ওনচোন থেকে দুটি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়।

বাইডেন প্রশাসনের দু’জন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ব্রিফিংকলে সাংবাদিকদের বলেন, উত্তর কোরিয়ার ক্রিয়াকলাপ জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলের নিষেধাজ্ঞার অন্তর্ভুক্ত এমন অস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে আরও দুজন মার্কিন কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছে, উত্তর কোরিয়া দুটি স্বল্প পরিসরের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে, তবে বিস্তারিত বলতে অস্বীকার করে তারা।

ওহিও সফরকালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন উত্তর কোরিয়ার সরকারকে উল্লেখ করে সাংবাদিকদের বলেন, আমরা শিখেছি যে এখনো অনেক কিছুই বদলায়নি।

উত্তর কোরিয়ার এই পরীক্ষাকে উসকানিমূলক হিসেবে বিবেচনা করেছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, না, প্রতিরক্ষা দফতরের মতে এটি যথারীতি ব্যবসা। তারা যা করেছে তাতে নতুন চিন্তার কিছু নেই।

বুধবার (২৪ মার্চ) দক্ষিণ কোরিয়ার ইয়োনহাপ সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়া ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে। সূত্রের বরাতে ইয়োনহাপ জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়া ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে, ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নয়।