সারাদেশে বৃহস্পতিবার অধস্তন আদালতে ভার্চুয়াল শুনানিতে ৩ হাজার ৯৮৬টি জামিন-দরখাস্ত নিষ্পত্তি হয়েছে। এ সময়ে কারাবন্দি ২৩৬০ জন আসামিকে জামিন দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) সুপ্রিম কোর্টের স্পেশাল অফিসার মুহাম্মদ সাইফুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন।

জানা গেছে, করোনা সংক্রমণ রোধকল্পে দ্বিতীয় দফায় সারা দেশে অধস্তন আদালত এবং ট্রাইব্যুনালে শারীরিক উপস্থিতি ব্যতিরেকে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে জামিন এবং জরুরি ফৌজদারি দরখাস্তের ওপর শুনানি হয়েছে। বৃহস্পতিবার দেশের অধস্তন আদালত ও ট্রাইব্যুনালে ভার্চুয়াল শুনানিতে ৩৯৮৬টি জামিনের দরখাস্ত নিষ্পত্তি করা হয়েছে এবং ২৩৬০ জন হাজতি অভিযুক্ত আসামিকে জামিন দেওয়া হয়েছে।

এর আগে ভার্চুয়াল আদালতের প্রথম দিন ১৩ এপ্রিল সারা দেশে অধস্তন আদালতে ১৬০৪ জন এবং দ্বিতীয় দিন ১৪ এপ্রিল ৩২৪০ জন আসামিকে জামিন দেওয়া হয়। আর তিন কার্যদিবসে মোট কারামুক্তি পেয়েছেন ৭২০৪ জন হাজতি আসামি।

গত ১২ এপ্রিল থেকে করোনা সংক্রমণ রোধকল্পে পুনরায় দ্বিতীয় দফায় সারাদেশে অধস্তন আদালত এবং ট্রাইব্যুনালে শারীরিক উপস্থিতি ব্যতিরেকে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে জামিন ও অতি জরুরি ফৌজদারি দরখাস্ত শুনানি হয়।

এর আগে, গত ১২ এপ্রিল সারাদেশে অধস্তন আদালতে ভার্চুয়াল শুনানিতে কারাবন্দি ১ হাজার ৬০৪ জন আসামিকে জামিন দেওয়া হয়েছিল।

 

 

এস এইচ আই